কালো জাম খেলেই হৃ’দরোগ ও ডায়াবেটিস থেকে মি’লবে মু’ক্তি!

মধু মাসের আরেক অন্যতম দেশীয় ফল কালোজাম। উপরে কালো আর ভেতরে বেগুনি রঙের মিষ্টি ছোট্ট ফলটি পুষ্টিতে ভরা।

কালো জামের বিচিও অনেক রো’গের দাওয়াই। এই কালো জামের রয়েছে হাজারো স্বা’স্থ্য উপকারিতা। তবে বছরে অল্প কয়েকদিন মেলে পুষ্টিকর এই ফল।

তবে জা’নেন কি? এই সময় বেশি করে জাম খেলে নানা রো’গ থেকে নিস্তার মিলবে। সেই স’ঙ্গে আপনার সারা বছরের পুষ্টির চাহি’দাও মেটাবে।

র’ক্তের টক্সিন দূ’র করা থেকে শুরু করে হাড় মজবুত করা। সব জায়গায় এর রয়েছে গুণাগুণ। আয়রন, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম এবং ভিটামিন সি সমৃদ্ধ জাম হৃদরো’গ ও ডায়াবেটিস প্র’তিরো’ধ করে। এছাড়াও রয়েছে অনেক স্বা’স্থ্য উপকারিতা। জে’নে নিন কয়েকটি-

> কালোজাম ভিটামিন সি সমৃদ্ধ। যা আপনার শ’রীরের রো’গ প্র’তিরো’ধ ক্ষ’মতা বাড়িয়ে তুলবে।

> হৃদরো’গ ও ডায়াবেটিসের ঝুঁ’কি কমায়। কোলেস্টেরল ও হাইপারটেনশন নিয়ন্ত্রণ করে।

> শ’রীরের র’ক্ত বৃ’দ্ধিতে সয়াহতা করে ছোট্ট এই ফলটি।

> হজ’মশ’ক্তি বাড়ায়, ঠাণ্ডা এবং অ্যালার্জির স’মস্যা দূ’র হয়।

> ত্বক ভালো রাখে, ত্বকের ব্রণ ও কালো ছোপ দূ’র হয়। দীর্ঘদিন তারুণ্য ধ’রে রাখে।

> জামকে অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভাণ্ডার বলা হয়। এটি ক্যা’ন্সার প্র’তিরো’ধেও সাহায্য করে।

> মুখের দুর্গন্ধ দূ’র হয়, দাঁত ও মাড়ি শক্ত ও মজবুত করে। বিভিন্ন ইনফেকশন কমাতে সাহায্য করে।

> জাম ও জামের বীজ ডায়াবেটিস হলে র’ক্তের সুগার নি’য়ন্ত্রণে সাহায্য করে।